নষ্টালজিয়া । ক্যামেলিয়া আহমেদ

নষ্টালজিয়া 
ক্যামেলিয়া আহমেদ

শব্দহীন বজ্রপাত যে আঘাত হেনেছিলো
পুড়িয়ে দিয়েছিলো স্বপ্নের নকশীকাঁথা
মনে আছে সব মনে আছে।

নষ্টালজিয়ায় পেয়ে বসেছে আজ
মনে পড়ছে অতীতের প্রচ্ছদ
শৈতপ্রবাহ পেরিয়ে উঠোনে এসে দাঁড়াবার
কেমন করে ভুলি শুভ্র চাঁদরের ভাঁজ।

মৃত্তিকা বুকে এঁকে রেখেছে যে পদচিহ্ন
সে মাটিতে পা পরে আক্রোশ ভষ্মীভুত হয়
নিরুপায় স্মৃতিরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে
আকাশ বাতাস অন্ধকার হয়ে ওঠে
পায়ে পা জড়িয়ে যায়।

ফেলে আসা এতোকালের মায়াবী গন্ধ
বাতাস হয়ে জাপটে ধরে
কানে কানে বলে হোক না প্রত্যাবর্তন
বোঝাতে পারি না সবকিছু অতীত
যে পথটি ছিলো আসা যাওয়ার
প্রেমে রচিত হয়েছিলো সে পথ
এখন তা পরিত্যাক্ত ধূ ধূ স্মৃতি।

আজ আর শুভ্র চাঁদরে মুড়িয়ে চুপিচুপি
কেউ ডাকবে না সাংকেতিক শব্দে
যে প্রতিক্ষায় চাঁদ জেগে থাকতো নির্জনতায়
সে প্রকৃতির নকশা বদলে গেছে কবেই
এখন দৃষ্টির কোনো ভাষা নেই
নেই নির্জনতার শব্দ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here